Hot!

সুবর্ণায় শেষ, জয়ায় শুরু

২৯ ডিসেম্বর মুক্তি পাচ্ছে বছরের শেষ ছবি বদরুল আনাম সৌদ পরিচালিত গহীন বালুচর। সুবর্ণা মুস্তাফা অভিনীত এই ছবিতে তাঁর সঙ্গে দেখা যাবে একঝাঁক তরুণ অভিনয়শিল্পীকে। অন্যদিকে ২০১৮ সালের ৫ জানুয়ারি সাইফুল ইসলাম মান্নু পরিচালিত পুত্র বছরের প্রথম ছবি হিসেবে মুক্তি পাচ্ছে। এতে অভিনয় করেছেন জয়া আহসান। দুটি ছবিরই পরিবেশক প্রতিষ্ঠান জাজ মাল্টিমিডিয়ার পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, দেশের অর্ধশতাধিক প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পাবে ছবি দুটি। গহীন বালুচর গত ২০ অক্টোবর মুক্তির কথা ছিল। কিন্তু মুক্তির দিন কয়েক আগেই তা পিছিয়ে ২৯ ডিসেম্বরে নেওয়া হয়। এ সময়টা বেছে নেওয়ার কারণ হিসেবে অভিনেত্রী সুবর্ণা মুস্তাফা বলেন, ‘সে সময় ঢাকা অ্যাটাক ছবিটি ভালো যাচ্ছিল। ঢাকা অ্যাটাক-এর হলের সংখ্যা যাতে না কমে, এ কারণে আমাদের ছবির মুক্তি পিছিয়ে দিয়েছিলাম।’ বছরের শেষ ছবি হিসেবে গহীন বালুচর নিয়ে দর্শকের একটা আলাদা আগ্রহ আছে বলে জানান সুবর্ণা মুস্তাফা। তিনি বলেন, ‘সবাই-ই যত্ন নিয়ে ছবি বানায়, আমরাও বানিয়েছি। একটি পরিপূর্ণ ভালো ছবি তৈরি করতে যা যা দরকার, সবই আছে এই ছবিতে। তাই বছর শেষের ছবি হিসেবে গহীন বালুচর নিয়ে ভালো প্রত্যাশা করতেই পারি।’
ছবিটিতে আরও অভিনয় করেছেন ফজলুর রহমান বাবু, মুন, তানভির, নীলাঞ্জনা নীলা প্রমুখ।বছরের শেষ ছবির পর মুক্তি পাবে বছরের প্রথম ছবি পুত্র। এতে একজন স্কুলশিক্ষিকার চরিত্রে অভিনয় করেছেন জয়া আহসান। তাঁর বিপরীতে আছেন ফেরদৌস। গত বছর খাঁচা ও বিসর্জন-এর মতো ছবি দিয়ে বাংলাদেশ ও ভারতে এই অভিনেত্রী নানা আলোড়ন তোলেন, দেশের জন্য বয়ে আনেন সম্মান ও গৌরব। এই ছবি দিয়ে ২০১৮ সালেরও শুভসূচনা হবে বলে প্রত্যাশা করছেন তিনি। জয়া আহসান বলেন, ‘সামাজিক ইস্যু নিয়ে তৈরি হয়েছে ছবিটি। দর্শক সহজেই গল্পে ঢুকে যেতে পারবেন। এ ধরনের সামাজিক সচেতনতামূলক গল্পের ছবি দর্শকদের আমি সিনেমা হলে গিয়ে দেখার অনুরোধ করব।’

২০১৫ সালে পুত্র ছবির কাজ শুরু হয়। প্রায় দুই বছর পর মুক্তি পাচ্ছে ছবিটি। ডিএফপির আর্থিক সহযোগিতায় তৈরি এই ছবিতে আরও অভিনয় করেছেন রিচি সোলায়মান, সাবেরী আলম প্রমুখ।