Hot!

বিশ্বের বৃহত্তম জাহাজ ‘ওয়েসিস অফ দ্য সিজ’

বিলাসবহুল বিরাট জাহাজ বললেই আমাদের ‘টাইটানিক’-এর কথা মনে পড়ে যায়। তবে বর্তমান বিশ্বের বৃহত্তম বিলাসবহুল জাহাজের নাম ‘ওয়েসিস অফ দ্য সিজ’। দেখে নেওয়া যাক এই জাহাজের ঝাঁ চকচকে অন্দরমহলের কয়েক ঝলক। ২০০৬ সালে শুরু হয় ‘ওয়েসিস অফ দ্য সিজ’-এর নির্মাণের কাজ। নভেম্বর, ২০০৮-এ প্রথম জলে ভাসে বিশাল এই বিলাসবহুল জাহাজটি    ‘ওয়েসিস অফ দ্য সিজ’ টাইটানিকের চেয়ে আকারে প্রায় পাঁচগুণ বড়। ২ লক্ষ ২৫ হাজার ২৮২ টনের এই জাহাজটি লম্বায় ১১৮৭ ফুট, চওড়ায় ২০৮ ফুট। এ ছাড়াও জলের নীচে প্রায় ৩০ ফুট কাঠামো রয়েছে জাহাজটির। এসটিএক্স ইউরোপ’-এর তৈরি এই জাহাজটির মালিকানা রয়েছে রয়্যাল ক্যারিবিয়ান ইন্টারন্যাশনালের হাতে। এটি তৈরি করতে খরচ হয়েছিল প্রায় দেড়শো কোটি ডলার যা ভারতীয় মূল্যে প্রায় ৯৭৫ কোটি টাকার সমান। ২২ তলা এই জাহাজটিতে রয়েছে ১৬টি ডেক এবং ২,৭০০টি বিলাসবহুল কেবিন। মোট ৬,৩০০ যাত্রী বহনে সক্ষম জাহাজটিতে রয়েছেন মোট ২,১০০ জন কর্মী। মোট ৭টি ভাগে ভাগ করা হয়েছে এই জাহাজটিকে। ‘ওয়েসিস অফ দ্য সিজ’-এ রয়েছে সেন্ট্রাল পার্ক, পুল, ফিটনেস সেন্টার, একাধিক পানশালা, রেস্তরাঁ, ক্যাসিনো-সহ একাধিক বিনোদন কেন্দ্র। ওয়েসিস অফ দ্য সিজ’-এ রয়েছে একটি আস্ত ভাসমান উদ্যান। যেখানে ১২ হাজার চারা গাছ এবং ৫৬টি বড় গাছ রয়েছে। জাহাজের পিছনের অংশে রয়েছে ৭৫০টি আসন বিশিষ্ট থিয়েটার, রয়েছে চারটি সুইমিং পুল।  বিলাসবহুল এই জাহাজে উত্তর ক্যারিবিয়ান সাগরে মোট ৯ রাত, ৯ দিন ঘুরতে কেবিন ভাড়া লাগবে ১৪৫৮ মার্কিন ডলার বা প্রায় ৯৫ হাজার টাকা। আর সি ফেসিং স্যুটগুলির ভাড়া ৩২০০ মার্কিন ডলার বা প্রায় ২ লক্ষ ৮ হাজার টাকা। বুকিং করতে হবে অন্তত দু’ বছর আগে।