Hot!

পর্ন আসক্ত স্বামীকে ‘শিক্ষা দিতে’ স্ত্রীর অভিনব কৌশল !

বিয়ের পরও স্বামীর অনেক অভ্যাসই মেনে নিতে পারেন না স্ত্রী। তা নিয়ে অশান্তিও হয়। কিন্তু স্বামীর বদঅভ্যাস ছাড়াতে এক ব্রিটিশ মহিলা যে কাণ্ড করেছেন, তা এককথায় চমকপ্রদ। সেই স্ত্রীর স্বামী পর্ন সাইটের প্রতি আসক্ত। বহুবার বলেও সেই অভ্যাস ছাড়াতে পারেননি স্ত্রী। শেষ পর্যন্ত প্রতিশোধ নিতে নিজের নগ্ন ছবি পর্ন সাইটে আপলোড করে দেন, স্বামী যে পর্ন সাইটটি দেখেন সেই পর্ন সাইটেই! ‘মুনসেট’ নামে ব্রিটেনের একটি জনপ্রিয় ওয়েবসাইটে নিজের অভিজ্ঞতার কথা জানিয়েছেন সেই ব্যক্তির স্ত্রী। ৪০ বছর বয়সী ওই মহিলা জানিয়েছেন, তিনি যখন অন্তঃস্বত্বা ছিলেন, তখন প্রতিরাতেই পর্ন সাইট গিয়ে মহিলাদের নগ্ন ছবি দেখতেন তার স্বামী। বহুবার মানা করেছিলেন। তার স্বামী শোনেননি। এরপর স্বামীকে উচিত শিক্ষা দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন ওই মহিলা। তিনি বলেন, ‘একদিন রাতে স্বামী ঘুমিয়ে পড়ার পর, আমি নিজের স্তনের ছবি তুলে পর্ন সাইটে পোস্ট করে দিই।’ স্ত্রীর এই কীর্তির কথা ঘুণাক্ষরেও টের পাননি ওই মহিলার স্বামী। এরপর যথারীতি অভ্যাসবশত ওই পর্নসাইটটি খোলেন তিনি।নিজের স্ত্রীর নগ্ন ছবি দেখে প্রচণ্ড রেগে গেলেও বিশেষ কিছু বলতে পারেনি বলে স্বামীটি। প্রতিশোধ নিতেই যে নিজের নগ্ন ছবি পর্ন সাইটে দিয়েছিলেন সেটিও স্বামীকে তখন জানিয়ে দিয়েছিলেন তিনি। মহিলা বলেন, ‘পর্ন সাইটে আমার ছবি দেখার পর অত্যন্ত রেগে যান আমার স্বামী। বলেন, আমি নাকি ওর থেকেও খারাপ কাজ করেছি।’ এই মহিলার কীর্তি নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে। অনেকেই ওই মহিলার এই পদক্ষেপকে সমর্থন করেছে। আবার কেউ কেউ এই দৃষ্টিভঙ্গির সমালোচনাও করেছেন। স্ত্রীর এই সিদ্ধান্তে তাদের সংসার ভেঙে যেতে পারে বলে মনে করছেন অনেকে। তবে অধিকাংশ লোকের মতে, নিজের নগ্ন ছবি পর্ণ সাইটে পোস্ট করে তার অপরিণত মানসিকতার পরিচয় দিয়েছেন ওই মহিলা। সর্বশেষ খবরের সুত্র অবশ্য জানিয়েছে, বিরুপ কোন প্রতিক্রিয়া পড়েনি। স্বামী বেচারি নাকি নিজের ভুল বুঝতে পেরে অনুতপ্ত হয়েই পর্ন সাইটে ভিজিট করা ছেড়েছেন ইতমধ্যে।   তবে সেই পর্ন সাইট থেকেও স্ত্রীর ছবি সরিয়েছেন দ্রুতই ।