Hot!

Other News

More news for your entertainment

ছেলের সঙ্গেই মাধ্যমিক পরীক্ষা দিচ্ছেন ৪৪ বছরের নারী!

৪৪ বছর বয়সী নারী রজনি বালা দেবী। শিক্ষাগ্রহণের ক্ষেত্রে বয়স যে সমস্যা নয়, প্রমাণ দিলেন তিনি। রজনি বালা চলতি বছরে মাধ্যমিক পরীক্ষা দিচ্ছেন তার ছেলের সঙ্গে। ভারতের লুধিয়ানার বাসিন্দা তিনি
জানা গেছে, দারিদ্রতার কারণে ১৯৮৯ সালে লেখাপড়া ছেড়ে দিতে হয়েছিল রাজনি বালাকে। সে বছরে তিনি নবম শ্রেণী পাস করে দশম শ্রেণীতে উঠেছিলেন। কিন্তু পারিবারিক চাপের কারণে ১৯৮৯ সালেই বিয়ে হয়ে যায় রজনি বালার। 
এখন তিনি তিন সন্তানের জননী। কিন্তু মনের মধ্যে রয়ে গেছে লেখাপড়া শেষ করার অদম্য ইচ্ছা, অন্তত মাধ্যমিক পরীক্ষাটুকু পাস করতেই হবে। সে কারণে প্রায় তিন দশক পরে ফের পরীক্ষা দিতে বসেছেন রজনি।
তিনি বলেন, 'অনেক বছর ধরেই আমার স্বামী আমাকে লেখাপড়া শেষ করার কথা বলছিলেন। আমার তিন ছেলেমেয়ে লেখাপড়া করেছে। আমি একটা হাসপাতালের কর্মী। এই অবস্থায় আমার মনে হয়েছিল, মাধ্যমিক পরীক্ষা দেওয়াটা জরুরি। তারপর আমার ছেলের সঙ্গেই লেখাপড়া শুরু করি।
রজনি বালা জানান, ছেলের সঙ্গেই নিয়মিত স্কুলে গেছেন তিনি। এখনও একই সঙ্গে পরীক্ষাকেন্দ্রে যাচ্ছেন। স্বামী-শাশুড়ি এবং সন্তানদের সাহায্য ছাড়া তার লেখাপড়ার স্বপ্ন সফল হতো না।
তিনি বলেন, 'আমার শাশুড়ি নিজে লেখাপড়া না জানলেও আমায় সবসময় উৎসাহ জুগিয়েছেন। ভোরে ঘুম থেকে উঠে আমাকে আর ছেলেকে পড়িয়েছেন আমার স্বামী। স্নাতক স্তরের পাঠ শেষ করার ইচ্ছে রয়েছে।'
এদিক, রজনির স্বামী রাজ কুমার জানান, বর্তমান সময়ে লেখাপড়া করা অত্যন্ত জরুরি। তিনি বলেন, 'লক্ষ্য পূরণে বয়স কোনো বাধা নয়। আমি ১৭ বছরের ব্যবধানে স্নাতকের পড়া শেষ করেছিলাম। আমি পারলে আমার স্ত্রী কেন পারবে না?'

পৃথিবীর মতো নতুন গ্রহ আবিষ্কার, প্রাণের সন্ধানে বিজ্ঞানীরা

সৌরজগৎ নিয়ে মানুষের জল্পনা-কল্পনার শেষ নেই। এ নিয়ে অনেক আগে থেকেই চলছে গবেষণা। আর তারই জের ধরে এবার ঠিক পৃথিবীর আকারেরই একটি নতুন গ্রহের সন্ধান পেলেন বৈজ্ঞানিকরা। এই গ্রহটি আমাদের পৃথিবী থেকে মাত্র ২০% বড়। তবে পৃথিবীর থেকে এর ঘনত্ব আড়াই গুণ বেশি।
নতুন আবিষ্কৃত এই গ্রহটির নামকরণ এখনও না হলেও এটিকে কে২-২২৯বি বলে চিহ্নিত করা হয়েছে। পৃথিবী থেকে ২৬০ মিলিয়ন আলোকবর্ষ দূরে অবস্থিত এই গ্রহটি একটি বামন নক্ষত্রের চারপাশে পরিক্রমণ করছে। দিনের বেলায় গ্রহটির তাপমাত্রা ২০০০ ডিগ্রি সেলসিয়াস পর্যন্ত পৌঁছে যায়। সূর্যের থেকে পৃথিবী যত দূরে অবস্থিত, তার তুলনায় এই গ্রহটি যে নক্ষত্রের চারপাশে পরিক্রমণ করছে, তার ১০০গুণ কাছে অবস্থিত। এই গ্রহটি প্রতি ১৪ ঘণ্টায় একবার নক্ষত্রের চারপাশে পরিক্রমণ করে।
বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন, এই গ্রহে প্রচুর ধাতব পদার্থ রয়েছে। আকারে অনেকটা পৃথিবীর মতো হলেও নক্ষত্রের এত কাছে থাকায় প্রকৃতিগত ভাবে সৌরজগতের বুধের সঙ্গে এই গ্রহটির অনেক সাদৃশ্য রয়েছে। 

হাতের নাগালে পড়লেও স্পর্শ করা যাবে না তিয়াংগং-১

চীনের মহাকাশ স্টেশন তিয়াংগং-১ নিয়ন্ত্রণহীন অবস্থায় পৃথিবীতে আছড়ে পড়তে যাচ্ছে। বিজ্ঞানীরা বলছেন, আগামী শুক্রবার থেকে মঙ্গলবারের মধ্যে যেকোনো সময় এটি পৃথিবীপৃষ্ঠে আঘাত করতে পারে। তবে এর সময়-স্থান সুনির্দিষ্ট করে বলা যাচ্ছে না। এ অবস্থায় এটি মানুষের বাড়িঘরে বা আশপাশে পড়ার আশঙ্কাও উড়িয়ে দিচ্ছেন না গবেষকরা।
গবেষকরা সতর্ক করেছেন, এতে অত্যন্ত বিপজ্জনক রেডিয়েশনযুক্ত পদার্থ থাকতে পারে। আর এ কারণে মহাকাশ স্টেশনটি বা এর অংশবিশেষ যদি আপনার পাশেও পড়ে তার পরেও তা ধরা উচিত নয়। এমনকি এ থেকে নির্গত ধোঁয়া থেকেও দূরে থাকবেন। নাহলে এর সংস্পর্শে মারাত্মক ক্ষতি হতে পারে মানবদেহের। তাই পাওয়া গেলে অবশ্যই আইনশৃঙ্খলা রক্ষা বাহিনীকে খবর দিতে হবে।
এখনো সেই মহাকাশযানটি কোথায় পড়বে, সে বিষয়ে কোনো ধারণা করতে পারছেন না গবেষকরা। কারণ এটির ওপর চীনের মহাকাশ গবেষণা কর্তৃপক্ষের নিয়ন্ত্রণ নেই।
বিষুবরেখা বরাবর ৪৩ ডিগ্রি উত্তর ও দক্ষিণের মধ্যে অবস্থিত যেকোনো জায়গায় তিয়াংগং-১ আছড়ে পড়তে পারে এটি। নিউ ইয়র্ক, বার্সেলোনা, পেইচিং, শিকাগো, ইস্তাম্বুল, রোম বা টরন্টো—পৃথিবীর বিভিন্ন দেশের ৩৮টি শহরের যেকোনো একটিতেও এটি পড়তে পারে। সময়টা হতে পারে আগামী শুক্রবার থেকে মঙ্গলবারের মধ্যে কোনো একসময়।
পৃথিবী এ মহাকাশ স্টেশনের তুলনায় এত বড় যে, এর দ্বারা মানুষের আঘাত পাওয়ার আশঙ্কা অত্যন্ত কম।  এ পর্যন্ত মাত্র একজন মানুষই মহাকাশ থেকে পড়া এ ধরনের আবর্জনায় সামান্য আহত হয়েছিলেন। ১৯৯৬ সালের সে ঘটনায় লটি উইলিয়ামস নামে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ওকলাহোমা রাজ্যের এক নারী আহত হয়েছিলেন।
তিয়াংগং-১ পুরোপুরি ধ্বংস হওয়ার আগে ভূপৃষ্ঠে পড়লে এটি থেকে হাইড্রাজিন নামে একটি বিষাক্ত তৈলাক্ত তরল নির্গত হতে পারে, যা মানুষের চোখ-নাক-গলায় প্রদাহ, মাথাঘোরা থেকে শুরু করে ক্যান্সারের কারণ পর্যন্ত হতে পারে। তাই এটি না ধরার জন্য আগেভাগেই সতর্ক করছেন গবেষকরা।
মহাকাশ থেকে পড়ার সময় পৃথিবীর বায়ুমণ্ডলের সঙ্গে সংঘর্ষে অনেকটাই পুড়ে ছাই হয়ে যাবে এটি। তবে ১০০ কেজির ধ্বংসাবশেষ আকাশ থেকে মাটিতে পড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

'দৈহিক সম্পর্কের পর ‌ট্রাম্প আমাকে ইভাঙ্কার সাথে তুলনা করত'

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের একের পর এক যৌনকেচ্ছা প্রকাশ্যে আসছে। অস্বস্তি বাড়ছে হোয়াইট হাউসের। এক প্রাক্তন প্লেবয় মডেল দাবি করেছিলেন মেলানিয়ার সাথে বিবাহের পরেই তার সাথে দৈহিক সম্পর্কে জড়িয়েছিলেন ট্রাম্প। আর এক প্রাক্তন মডেল দাবি করেছেন, দৈহিক সম্পর্কের পর ট্রাম্প নাকি নিজের মেয়ে ইভাঙ্কার সাথে তার তুলনা করেছিলেন। 
এই দাবির পর ট্রাম্পের অস্বস্তি কয়েকগুণ বেড়ে যাবে। প্রশ্ন ইতিমধ্যেই উঠছে। তাহলে কী ইভাঙ্কার সাথেও দৈহিক সম্পর্ক আছে ট্রাম্পের!‌ এক সাক্ষাৎকারে প্রাক্তন মডেল ক্যারেন ম্যাকডাউগেল দাবি করেছেন, ট্রাম্পের সাথে তার দৈহিক সম্পর্ক ছিল। শুধু তাই নয়, ক্যারেনের সাথে প্রথমবার মিলনের পর ট্রাম্প নাকি বলেছিলেন, তুমি ইভাঙ্কার মতোই সুন্দরী। ইভাঙ্কা একজন অসাধারণ নারী। ওকে নিয়ে আমি গর্ব করি। তুমিও ইভাঙ্কার মতো অসাধারণ।
ক্যারেনের আরও দাবি, দৈহিক সম্পর্কের পর ট্রাম্প নাকি টাকাও দিতে চেয়েছিলেন তাকে। কিন্তু তিনি সেই টাকা নেননি। যদিও হোয়াইট হাউস থেকে গোটা ঘটনার কথা অস্বীকার করা হয়েছে। এমনকি ক্যারেনের সাথে সম্পর্কের কথাও অস্বীকার করেছেন ট্রাম্প। 
এর আগে পর্ন ছবির নায়িকা স্টোর্মি ড্যানিয়েলসও বলেছিলেন, তার সাথেও নাকি শারীরিক মিলনের পর ইভাঙ্কার প্রসঙ্গ তুলেছিলেন ট্রাম্প।

যুক্তরাষ্ট্রে পাকিস্তান প্রধানমন্ত্রীর জ্যাকেট খুলে তল্লাশি

মার্কিন বিমানবন্দরে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী শহীদ খাকান আব্বাসিকে তল্লাশি করা হয়েছে। এক দেশের রাষ্ট্রপ্রধান অন্য দেশে গেলে বিমানবন্দরে তাদের যে ধরনের অভ্যর্থনা দেওয়া হয় আব্বাসিকে তার বিন্দুমাত্রও দেওয়া হয়নি। বরং মার্কিন বিমানবন্দরের নিরাপত্তা রক্ষীরা তার জ্যাকেট খুলে সাধারণ যাত্রীদের মতো করেই তল্লাশি করেন। পরবর্তিতে সোশ্যাল মিডিয়ায় সেই ভিডিও ভাইরাল হয়ে যায়। এতে দেখা যায় এক হাতে কোট, অন্য হাতে স্যুটকেস নিয়ে হেঁটে যাচ্ছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী। 
জানা যায়, সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্র সফরে যান পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী শহীদ খাকান আব্বাসিকে। মার্কিন প্রশাসনের কেউই তাকে স্বাগত জানাতে বিমানবন্দরে যাননি। বরং বিমানবন্দরের নিরাপত্তা রক্ষীরা তার জ্যাকেট খুলে সাধারণ যাত্রীদের মতো করেই তল্লাশি করেন। 
এদিকে, দেশের প্রধানমন্ত্রীকে এই ভাবে অপদস্থ হতে দেখে ক্ষোভে ফুঁসছে পাকিস্তানের জনগণ। সে দেশের একটি টিভি চ্যানেলে ভিডিওটি পোস্ট করে মার্কিন বিমানবন্দরে প্রধানমন্ত্রী শাহীদ খাকান আব্বাসিকে অপমান করা হয়েছে বলে দাবি তুলা হয়েছে। যদিও অপর মহল থেকে ভিডিওটির সত্যতা নিয়ে প্রশ্ন তোলা হয়েছে। ভিডিওর ছবিতে দেখানো ব্যক্তি যে পাক প্রধানমন্ত্রী তার কোনো নিশ্চয়তা মেলেনি।

তবে ঘটনাটি যদি সত্যি হয় তাহলে এর বিরূপ প্রভাব কিছুটা হলেও আমেরিকা ও পাকিস্তানের সম্পর্কে পড়তে পারে বলে রাজনৈতিক মহল মত দিয়েছে। এমনিতেই ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রেসিডেন্ট হয়ে আসার পর দুই দেশের সম্পর্কে শীতলতা তৈরি হয়েছে।
পাকিস্তান নাগরিকদের ভিসার উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করার কথা চিন্তা ভাবনা করছে ট্রাম্প প্রশাসন। মাঝে মধ্যেই পাকিস্তানকে জঙ্গিদের মদত না যোগানোর হুঁশিয়ারিও দেন ট্রাম্প। 

হায়দরাবাদের অধিনায়কত্ব ছাড়লেন ওয়ার্নার

বল বিকৃতি কাণ্ডে দোষী সাব্যস্ত হওয়ায় কলঙ্কের বুঝা মাথায় নিয়ে দেশে ফিরছেন তিন অজি ক্রিকেটার স্টিভ স্মিথ, ডেভিড ওয়ার্নার এবং ক্যামেরন ব্যানক্রফ্ট। স্মিথ-ওয়ার্নারদের শাস্তির মেয়াদ কতদিন তা জানা যাবে খুব দ্রতই। নির্দোষ প্রমাণিত হওয়ায় অজি দলের কোচ থাকছেন ড্যারেন লেম্যান।
স্টিভ স্মিথ রাজস্থানের অধিনায়কত্ব ছাড়ার পর এবার সানরাইজার্সের নেতৃত্ব ছাড়লেন ওয়ার্নার। আইপিএলের এগারতম আসরে সানরাইজার্স দলের অধিনায়ক হিসেবে দেখা যাবে না ডেভিড ওয়ার্নারকে। দলের অধিনায়কত্ব ছেড়ে দিয়েছেন তিনি। গত মঙ্গলবার এই পদ থেকে ইস্তফা দিয়েছেন তিনি।
অবশ্য আগেই থেকেই বোঝা যাচ্ছিল এবারের আইপিএলে তাকে নাও দেখা যেতে পারে। কেননা কেপটাউন টেস্টের বল টেম্পারিংয়ের ঘটনার অন্যতম হোতা ছিলেন অজি দলের এই সদ্য সাবেক হওয়া সহ-অধিনায়ক।
ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া অবশ্য এরই মাঝে কড়া শাস্তি দেওয়ার আলামত দিচ্ছে ডেভিড ওয়ার্নারসহ বাকি দুইজনকে (অধিনায়ক স্মিথ ও ওপেনার বেনক্রফট)। এবার আবারও সেই ঘটনার মাশুল দিলেন ওয়ার্নার। আর দুইদিন আগে অধিনায়কত্ব কেড়ে নেওয়া হয়েছিল স্মিথের (রাজস্থান রয়ালসের পক্ষ থেকে)।
সানরাইজার্স দলের সি.ই.ও কে শানমুঘাম মিডিয়ার সামনে জানান, সাম্প্রতিক ঘটনার কারণে ডেভিড ওয়ার্নার অধিনায়কের পদ থেকে ইস্তফা দিয়েছেন। দলের নতুন অধিনায়কের নাম শিগগিরই ঘোষণা করা হবে।-টাইমস অব ইন্ডিয়া।

গুগলে সবচেয়ে বেশি খোঁজা হয়েছে যেসব প্রশ্নের উত্তর!

সভ্যতার শুরু থেকেই প্রতিনিয়ত মানুষ অজানাকে জানার চেষ্টা করে যাচ্ছে। আর বর্তমান বিশ্বে প্রযুক্তির কল্যাণে তথ্য ভান্ডারে পরিণত জনপ্রিয় সার্চ ইঞ্জিন গুগল। তাই মানুষ এখন অনেক প্রশ্নেরই উত্তর মানুষ খোঁজে গুগলে। সম্প্রতি গুগল প্রকাশ করেছে বিশ্বের সবচেয়ে বেশি ‘হাউ ‍টু ....’ অর্থাৎ ‘কিভাবে ...’- খোঁজা হয়েছে, এমন ১০টি বিষয়ের তালিকা। 
তবে আর দেরি না করে চলুন জেনে নেই বিশ্বে সবচেয়ে বেশি গুগলে সার্চ করা ১০টি ‘হাউ টু ...’- বিষয়ের তালিকা:
১. how to tie a tie (কিভাবে টাই বাঁধতে হয়)
২. how to kiss (কিভাবে চুমু দিতে হয়)
৩. how to get pregnant (কিভাবে গর্ভবতী হওয়া যায়)
৪. how to lose weight (কিভাবে ওজন কমানো যায়)
৫. how to draw (কিভাবে আঁকা যায়)
৬. how to make money (কিভাবে অর্থ উপার্জন করা যায়)
৭. how to make pancakes (কিভাবে প্যানকেক বানাতে হয়)
৮. how to write a cover letter (কিভাবে কভার লেটার লিখতে হয়)
৯. how to make french toast (কিভাবে ফ্রেঞ্চ টোস্ট বানাতে হয়)
১০. how to lose belly fat (কিভাবে পেটের মেদ কমানো যায়)
গুগলের ডাটা এডিটর সাইমন রজার্স বলেন, ‘সম্প্রতি আমরা লক্ষ্য করেছি যে, গুগলে ‘হাউ টু ....’ প্রশ্ন খোঁজা বর্তমানে ১৪০ শতাংশের বেশি বৃদ্ধি পেয়েছে। আর এর মধ্যে বেশিরভাগ জিনিসপত্রের সমাধান সম্পর্কিত প্রশ্ন যেমন লাইটবাল্ব, জানালা, ওয়াশিং মেশিন এমনকি টয়লেট পর্যন্তও রয়েছে।

বাংলাদেশকে হালকাভাবে নিতে রাজি নয় ভারত

পরিসংখ্যান যতই তাদের পক্ষে থাকুক, নিদাহাস ট্রফির ফাইনালে বাংলাদেশকে একেবারেই হালকাভাবে নিতে চায় না রোহিত শর্মার ভারত। বিশেষত যেভাবে বাংলাদেশ দু’‌বার শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে দুর্দান্তভাবে রান তাড়া করে জিতেছে, তাতে ভারতকে যেতে হচ্ছে নতুন পরিকল্পনায়। 
পরিসংখ্যান হয়তো বলবে এ পর্যন্ত ভারতের বিরুদ্ধে একটাও টি-২০ ম্যাচ জিততে পারেনি বাংলাদেশ। কিন্তু তাতে এতটুকু আত্মতুষ্ট হতে রাজি নয় ভারতীয় শিবির। বাংলাদেশের কাছে হেরে মুখ পোড়াতে রাজি নন রোহিতরা। এ প্রসঙ্গে দীনেশ কার্তিক জানান, ‘‌উপমহাদেশের মাটিতে বাংলাদেশ বেশ শক্তিশালী দল। ওদের জেদ মারাত্মক। গত কয়েক বছরে ওরা দারুণ উন্নতি করেছে। তাই আমাদের সতর্ক থাকতেই হবে।’‌
সাংবাদিক বৈঠকে ঠিক গেলেন দীনেশ কার্তিক আরও বলেন, ‘‌সত্যি কথা বলতে, যখন আমরা বাংলাদেশের বিরুদ্ধে খেলি তখন লোকে বলে, ও আচ্ছা, তোমরা বাংলাদেশকে হারিয়েছ। কিন্তু হেরে গেলেই লোকে বিস্মিত হয়ে প্রশ্ন করবে, সে কী, তোমরা বাংলাদেশের কাছে হেরে গেছো!‌ এবারও তার ব্যতিক্রম নয়।’‌ 
আয়োজক দেশই উঠতে পারেনি ফাইনালে। তাই রবিবার প্রেমদাসা স্টেডিয়ামে হয়তো সেভাবে ভিড় দেখতে পাওয়া যাবে না। কার্তিক মেনে নিয়েছেন, দর্শকদের অভাব ম্যাচে ফ্যাক্টর হয়ে দাঁড়াতে পারে। তিনি বলেন, ‘‌বাংলাদেশের বিরুদ্ধে দ্বিতীয় ম্যাচে আমাদের ফিল্ডিং সব থেকে খারাপ ছিল। কারণ বেশি সমর্থন আমরা পাইনি, তাই মোটিভেশনটা ছিল না। মাঠে লোক থাকুক বা না থাকুক, আউটফিল্ড ফাস্ট হোক না হোক, ফিল্ডিংয়ে আরও উন্নতি করতেই হবে। পরের দুটো ম্যাচে আমরা সেটা দেখিয়েও দিয়েছি।’‌
এদিকে নিদাহাস ট্রফির ফাইনালে ওঠায় গোটা দলকে এক কোটি টাকা পুরস্কার দিচ্ছে বাংলাদেশের ক্রিকেট বোর্ড। শনিবার বোর্ড প্রেসিডেন্ট নাজমুল হাসান জানান, ‘‌আমি মনে করি এটা বড় কৃতিত্ব। তাই এই টাকাটা ওদের বোনাস হিসেবে দিচ্ছি। ফাইনালে জিতলে বোনাস আরও বড় হবে।’‌‌

ছক্কা হাঁকিয়ে ফাইনালে বাংলাদেশ

মাহমুদুল্লাহ'র ব্যাটিং নৈপুণ্যে স্বাগতিক শ্রীলঙ্কাকে হারিয়ে নিদাহাস ট্রফির ফাইনালে উঠেছে বাংলাদেশ।১ বল হাতে রেখেই শ্রীলঙ্কার দেওয়া ১৬০ রান তুলে নেয় বাংলাদেশ। শেষ ওভারে জয়ের জন্য বাংলাদেশের দরকার ছিল ১২ রান। হাতে তখন মাত্র ৩ উইকেট। স্ট্রাইকে মুস্তাফিজুর রহমান। বোলিংয়ে ইসুরু উদানা। প্রথম বলে কোনও রান নিতে পারলেন না মুস্তাফিজ। পরের বলে আউট হয়ে ফিরে গেলেন কাটার মাস্টার। তখন ৪ বলে দরকার ১২ রান। স্ট্রাইকে মাহমুদুল্লাহ। উদানার তৃতীয় বলে চার মারলেন মাহমুদুল্লাহ। চতুর্থ বলে ঝুঁকি নিয়ে ২ রান নিলেন। এরপর পঞ্চম বলে ছক্কা হাঁকিয়ে জয় নিশ্চিত করেই মাঠ ছাড়েন এই সাইলেন্ট কিলার। ১৮ বলে ৩ চার ও ২ ছক্কায় ৪৩ রান করেন রিয়াদ।
এর আগে কুশল পেরেরা ও থিসারা পেরেরার ব্যাটে ভর করে লড়াইয়ের পুঁজি পায় লঙ্কানরা। ৪১ রানে পাঁচ উইকেট পড়ে যাওয়া শ্রীলঙ্কাকে টেনে তুললেন এই দুই ব্যাটসম্যান। দুজনে মিলে গড়েছেন ৯৭ রানের জুটি। আর এতেই নির্ধারিত ২০ ওভার শেষে ৭ উইকে ১৫৯ রান সংগ্রহ করে শ্রীলঙ্কা। লঙ্কানদের হয়ে কুশল পেরেরা ৪০ বলে খেলেছেন ৬১ রানের দুর্দান্ত ইনিংস। যেখানে ১টি ছক্কা ও ৭টি চারের মার রয়েছে। আর শেষ দিকে মারকুটে ইনিংস উপহার দিয়েছেন থিসারা পেরেরাও ৩৭ বলে ৩ ছক্কা ও ৩ চারে করেছেন ৫৮ রান। বাংলাদেশের হয়ে মুস্তাফিজ ২টি, সাকিব, মিরাজ, রুবেল ও সৌম্য ১টি করে উইকেট পেয়েছেন।
নিদাহাস ট্রফির অলিখিত সেমিফাইনালে শুরুতেই ৫ উইকেট খুইয়ে চাপে পড়ে স্বাগতিক শ্রীলঙ্কা। অধিনায়ক সাকিব আল হাসান ও কাটার মাস্টার মুস্তাফিজের বোলিং ঘূর্ণিতে মাত্র ৪১ রানেই ৫ উইকেট হারায় হাথুরুর শিষ্যরা।
কুশল মেন্ডিসের পর শানাকার উইকেটও তুলে নেন মুস্তাফিজ। উপুল থারাঙ্গাকে রান আউট করেন মুস্তাফিজ ও মিরাজ। অধিনায়ক সাকিব আল হাসান নিজের দ্বিতীয় ওভারে এসে প্রথম বলেই সাজ ঘরে ফেরান লঙ্কান ওপেনার দানুশকা গুনাতিলাকাকে। লং অনে সাকিবকে উড়িয়ে মারতে গিয়ে সাব্বিরের হাতে তালুবন্দি হন গুনাতিলাকা।
এর আগে নিদাহাস ট্রফিতে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টসে জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন বাংলাদেশ অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। আর ইনজুরি কাটিয়ে টাইগারদের একাদশে ফিরেছেন অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। তাকে জায়গা দিতে একাদশ থেকে বাদ পড়েছেন আবু হায়দার রনি। এদিকে লঙ্কান টিমে পরিবর্তন দু’টি। সুরাঙ্গা লাকমল ও দুশমান্থা চামিরার জায়গায় ইসুরু উদানা ও আমিলা আপোন্সো।
বাংলাদেশ একাদশ:
তামিম ইকবাল, সাকিব আল হাসান (অধিনায়ক), লিটন কুমার দাস, সৌম্য সরকার, মুশফিকুর রহিম, মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ, সাব্বির রহমান, মেহেদী হাসান মিরাজ, নাজমুল ইসলাম অপু,রুবেল হোসেন ও মুস্তাফিজুর রহমান।
শ্রীলঙ্কা একাদশ: উপুল থারাঙ্গা, দানুশকা গুনাথিলাকা, কুসল মেন্ডিস, দাসুন শানাকা, কুসল পেরেরা, থিসারা পেরেরা, জিবন মেন্ডিস, ইসুরু উদানা, আকিলা দনঞ্জয়া, নুয়ান প্রদিপ, আমিলা আপোন্সো।

স্টিফেন হকিং আর নেই​

খ্যাতিমান পদার্থবিজ্ঞানী স্টিফেন হকিং আর নেই। ৭৬ বছরে বয়সে পৃথিবীর মায়া ত্যাগ করে চলে গেলেন এই বিজ্ঞানী। মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেছে তার পরিবার। 
ব্ল্যাক হোল নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে গবেষণা করে আসছিলেন স্টিফেন হকিং। এছাড়াও তিনি তার বিখ্যাত বই 'এ ব্রিফ স্টোরি অব টাইম' এর জন্য অমর হয়ে থাকবেন। 
হকিংয়ের সন্তান লুসি, রবার্ট এবং টিম বলেন, 'আমাদের বাবা আচমকাই আমাদের ছেড়ে চলে গেছেন। তিনি ছিলেন মহান বিজ্ঞানী এবং অসাধারণ ব্যক্তিত্ব সম্পন্ন।'
স্টিফেন হকিংয়ের পুরো নাম স্টিভেন উইলিয়াম হকিং। তার জন্ম ১৯৪২ সালের ৮ জানুয়ারি। বিশিষ্ট ইংরেজ তাত্ত্বিক পদার্থবিজ্ঞানী ও গণিতজ্ঞ হিসেবে বিশ্বের সর্বত্র পরিচিত ব্যক্তিত্ব তিনি। তাকে বিশ্বের সমকালীন তাত্ত্বিক পদার্থবিদদের মধ্যে অন্যতম হিসাবে বিবেচনা করা হয়। 
হকিং কেমব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয়ের লুকাসিয়ান অধ্যাপক (স্যার আইজ্যাক নিউটনও একসময় এই পদে ছিলেন। ২০০৯ সালে ওই পদ থেকে অবসর নেন তিনি। 
এছাড়াও তিনি কেমব্রিজের গনভিলি এবং কেয়াস কলেজের ফেলো হিসাবে কর্মরত ছিলেন। দীর্ঘদিন ধরে শারীরিকভাবে ভীষণরকম অচল ছিলেন। তিনি মোটর নিউরন রোগে আক্রান্ত ছিলেন।
প্রায় ৪০ বছর ধরে হকিং তত্ত্বীয় পদার্থবিজ্ঞানের চর্চা করেছেন। লিখিত পুস্তক এবং বিভিন্ন অনুষ্ঠানে হাজির থেকে হকিং একাডেমিক জগতে যথেষ্ট খ্যাতিমান হয়ে উঠেছেন। 
তিনি রয়েল সোসাইটি অব আর্টসের সম্মানীয় ফেলো। এবং পন্টিফিকাল একাডেমি অব সায়েন্সের আজীবন সদস্য ছিলেন। ২০১৪ সালে তাকে নিয়ে একটি মুভি তৈরি হয়, 'নাম থিওরি অব এভরিথিং'।

চ্যালেঞ্জ নিয়ে সন্ধ্যায় ভারতের বিপক্ষে মাঠে নামবে টাইগাররা

খুব বড় জয়ের পর সাধারণত ফুরফুরে মেজাজেই থাকে দলগুলো। বাংলাদেশও এর ব্যতিক্রম নয়। অবশ্য কয়েকদিন আগেই ঘরের মাঠে বাজে সময় কাটিয়েছে বাংলাদেশ। বর্তমানে একটি মাত্র জয় হাসি ফিরিয়ে দিতে পারে টাইগার ভক্তদের। সেই সাথে আত্মবিশ্বাসের পালে হাওয়া দিতে কঠিন চ্যালেঞ্জ নিয়ে মাঠে নামবে মাহমুদউল্লাহ- মুশফিক-তামিমরা। 
নিদাহাস ট্রফিতে নিজেদের প্রথম ম্যাচে আজ ভারতের মুখোমুখি হচ্ছে বাংলাদেশ। বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় শ্রীলঙ্কার প্রেমাদাসা স্টেডিয়ামে টিম ইন্ডিয়ার বিপক্ষে খেলতে নামবে মাহমুদউল্লাহর বাংলাদেশ। নিজেদের বাজে সময়ের ইতি টানতে জয়ে চোখ রেখে খেলতে নামবে কোর্টনি ওয়ালশের দল।
সব শেষ সিরিজে ঘরের মাঠে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে তিক্ত অভিজ্ঞতার মুখোমুখি হয়েছিল বাংলাদেশ। তবে সাম্প্রতিক সেই হতাশা ভুলে ঘুরে দাঁড়ানোর স্বপ্ন দেখছে টাইগাররা। ইনজুরির কারণে দলের সেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান না থাকতে পারলেও শক্তিশালী ভারতের বিপক্ষে সময়ের প্রয়োজনে বেশ সজাগ হয়েই মাঠছে তামিম-মাহমুদউল্লাহ-মুস্তাফিজরা।
নিয়মিত একাদশ ছাড়া খেলতে নেমে রোহিত শর্মার নেতৃত্বে নিদাহাস ট্রফির উদ্বোধনী ম্যাচে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে হেরেছে ভারত। তাই বাংলাদেশর বিপক্ষে মাঠে নামার আগে কিছুটা ব্যাকফুটে টিম ইন্ডিয়া। তবে বাংলাদেশের বিপক্ষে মাঠে নামার আগের দিনে খেলোয়াড়দের বাৎসরিক বেতন-বোনাস বৃদ্ধির ঘোষণায় কিছুটা চনমনে হয়ে মাঠে নামতে পারে ভারত।
বাংলাদেশ ও ভারত এ পর্যন্ত টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলেছে ৫টি। তবে ৫ ম্যাচের একটিতেও জয় পায়নি বাংলাদেশ। এর মধ্যে টাইগারদের সেরা উত্তেজনার ম্যাচ ছিল ২০১৬ সালে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে বেঙ্গালুরুতে ভারতের বিপক্ষে ১ রানের হার।

আফগান সেনার হামলায় আরও ২২ জঙ্গি নিহত


আফগান সেনাবাহিনীর হামলায় ২২ জঙ্গি নিহত হয়েছে। স্থল ও বিমান হামলা চালিয়ে এদের হত্যা করা হয়েছে বলে জানা গেছে। আশঙ্কা করা হচ্ছে মৃতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে। গোটা দেশ জুড়ে এই হামলা চলেছে বলে জানা গেছে।
এ ব্যাপারে টোলো নিউজ সূত্রে জানা গেছে, রবিবার সেদেশের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় এই খবরের সত্যতা স্বীকার করেছে। মিতারলামের বাসরাম, কামা, নাহর সারাজ, নাদ আলি জুড়ে হামলা চলে।
এরআগে, আফগান সেনার বিমান হানায় নিহত হয় ৪২ জন জঙ্গি। আফগানিস্তানের বিভিন্ন জায়গায় পৃথক পৃথক ভাবে বিমান হানা চালায় আফগান সেনা। এই বিমান হানায় নিহত হয় আই এস ও তালেবান মিলিয়ে মোট ৪২ জন জঙ্গি। আফগানিস্তানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় সূত্রে এমনটাই জানা গেছে।
গত চব্বিশ ঘন্টা একটানা বিমান হানা চালায় আফগান সেনা। আইএস ও তালেবানদের গোপন ঘাঁটি লক্ষ্য করে চলে এই হামলা। জঙ্গিদের মধ্যে ৭ জন তালেবান জঙ্গি নিহত ও আরও ৬ জন গুরুতর ভাবে আহত বলে জানিয়েছে প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় সূত্র।