Hot!

বিশ্বসেরা ২০টি স্মার্টফোনের বিস্তারিত জেনে নিন


স্মার্টফোনের জগতটি প্রতিনিয়ত পরিবর্তনশীল। এখানে আজকে যে স্মার্টফোনটিকে সেনা বলে মনে হবে, তা পরদিনই সে অবস্থানে নাও থাকতে পারে। তাই আগে যে স্মার্টফোনগুলোকে সেরা হিসেবে গণ্য করা হত, তা এবার নাও হতে পারে। এ লেখায় তুলে ধরা হলো সেরা কয়েকটি স্মার্টফোন। এক প্রতিবেদনে বিষয়টি জানিয়েছে বিজনেস ইনসাইডার।
১. আইফোন ৬এস
দারুণ নকশা, সহজ ব্যবহার ও টেকসই উপাদানের সমন্বয়ের কারণে জনপ্রিয় হয়েছে আইফোন ৬ এস। নতুন আইফোন সম্পর্কে অ্যাপলের টিম কুক বলেন, ‘বিশ্বের সবচেয়ে উন্নত স্মার্টফোন।’ এই স্মার্টফোনে রয়েছে অ্যাপলের আইওএস ৯ অপারেটিং সিস্টেমে। ফোরকে মানের ভিডিও ধারণ করার জন্য এই ফোনের পেছনে উন্নত আই-সাইট ক্যামেরা যুক্ত করেছে অ্যাপল। ফোরকে ডিসপ্লেতে রেজুলেশন থাকে ৩৮৪০ বাই ২১৬০ যাতে পিক্সেল ঘনত্ব হয় ইঞ্চি প্রতি ৮০৬। গত বছরে বাজারে আসা আইফোন ৬ এ আট মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা থাকলেও নতুন আইফোনের পেছনে ১২ মেগাপিক্সেল ও সামনে পাঁচ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা যুক্ত হয়েছে। লাইভ ফটোজ নামের নতুন একটি ফিচারও যুক্ত করেছে প্রতিষ্ঠানটি। আইওএস ৯ এ ফিচার হিসেবে রয়েছে ডিজিটাল সহকারী সিরির উন্নত সংস্করণ। এমনকি এটি ব্যাটারির চার্জ বাড়তি এক ঘণ্টা পর্যন্ত বাঁচাতে পারে। ১৬ জিবি, ৬৪ জিবি ও ১২৮ জিবি এই তিনটি সংস্করণে বাজারে এসেছে নতুন আইফোন। বাজারে এর মূল্য কমপক্ষে ৬৪৯ ডলার।
২. আইফোন ৬এক্স প্লাস
আপনি যদি বিশ্বের সবচেয়ে ভালো ও বড় স্মার্টফোন চান তাহলে এটি ব্যবহার করতে পারেন। স্যামসাংয়ের গালাক্সি নোট এর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী হলেও আইফোনের ডিজাইন, হার্ডওয়্যার ও অন্যান্য অ্যাপের কারণে এ ফোনটিকেই সেরা মানছেন অনেকে। এ বছরের আইফোন ৬এস প্লাস আগের তুলনায় গতিশীল। এতে রয়েছে ভালো ক্যামেরা ও উন্নত ফিঙ্গারপ্রিন্ট স্ক্যানার। পাশাপাশি এতে রয়েছে অ্যাপলের সর্বশেষ প্রযুক্তির প্রেসার-সেনসিং টলজি। মূল্য কমপক্ষে ৭৪৯ ডলার।
৩. আইফোন এসই
চার ইঞ্চি স্ক্রিনের আইফোন এসই এখন অনেকেরই সেরা স্মার্টফোনের তালিকায় স্থান নিয়েছে। এ স্মার্টফোনটিতে রয়েছে অ্যাপলের যাবতীয় অ্যাপ, ইকোসিস্টেম, সাপোর্ট ও সেরা স্মার্টফোনের পারফরমেন্স। এর মূল্য কম হওয়ায় অনেকেই একে দামের তুলনায় সেরা ফোন বলে মনে করছেন। এর ব্যাটারি লাইফ যেমন ভালো তেমন অন্যান্য ফিচারও মন্দ নয়। মূল্য কমপক্ষে ৩৯৯ ডলার।
৪. নেক্সাস ৬পি
গুগল নেক্সাস ৬পি হলো নেক্সাস ৫এক্স-এর সামান্য বড় ভার্সন। গুগলের পক্ষ থেকে এটি তৈরি করেছে হুয়াউয়েই। এটি নেক্সাস ৫এক্স-এর মতোই গুগলের নানা সুযোগ সুবিধা পাবে। যে কারণে স্মার্টফোনটিতে সবার আগে আপডেটেড অপারেটিং সিস্টেম ও সফটওয়্যারের নিখুঁত পারফর্মেন্স পাওয়া যাবে। মূল্য কমপক্ষে ৪৯৯ ডলার।
৫. গুগল নেক্সাস ৫এক্স
অ্যান্ড্রয়েড ফোনের মধ্যে মানসম্মত ও কিছুটা কমদামের ভার্সন খুঁজলে গুগল নেক্সাস ৫এক্স এর তুলনা নেই। এ স্মার্টফোনটিতে রয়েছে ৫.২ ইঞ্চি স্ক্রিন ও ১২.৩ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা। গুগল দাবি করছে বিশেষ প্রযুক্তির কারণে এ স্মার্টফোনের ছবি অন্যদের থেকে অনেক উন্নত। এতে রয়েছে সম্পূর্ণ অক্ষত অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম, যা এর পারফর্মেন্স উন্নত করবে। এছাড়া অ্যান্ড্রয়েডের যে কোনো আপডেট সবার আগে এ স্মার্টফোন পাবে। মূল্য প্রায় ৩৪৯ ডলার।
৬. স্যামসাং গ্যালাক্সি এস৭ এজ
স্যামসাংয়ের সবচেয়ে উন্নত স্মার্টফোন হিসেবে গ্যালাক্সি এস৭ এজকে পরিচিত করিয়েছে গুগল। এটি আগের ভার্সনের তুলনায় বহুদিক দিয়েই উন্নত। স্যামসাং জানিয়েছে সম্পূর্ণ নতুনভাবে স্মার্টফোনটির ডিজাইন করা হয়েছে। এতে রয়েছে ৫.৫ ইঞ্চি স্ক্রিন। মূল্য কমপক্ষে
৬৬৯ ডলার।
৭. স্যামসাং গ্যালাক্সি এস৭
স্যামসাংয়ের গ্যালাক্সি স্মার্টফোনের এ মডেলটিতে রয়েছে সবচেয়ে উন্নত ক্যামেরা। এ স্মার্টফোনের ক্যামেরা এমনকি আইফোন ৬এস প্লাসের চেয়েও উন্নত। এছাড়া এটি অত্যন্ত শক্তিশালী কিছু ফিচার রয়েছে। স্মার্টফোনটি পানিরোধক। এতে রয়েছে মাইক্রোএসডি কার্ড স্লট। এছাড়া আপনি স্যামসাং পে  ব্যবহার করতে পারবেন এর মাধ্যমে। মূল্য কমপক্ষে ৫৬৮ ডলার।
৮. ওয়ানপ্লাস ৩
কমদামে বড় মনিটরের স্মার্টফোন চাইলে ওয়ানপ্লাস ৩ সবচেয়ে ভালো। নতুন মডেলটিতে রয়েছে মেটাল বডি, প্রায় অক্ষত অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম, স্ন্যাপড্রাগন ৮২০ প্রসেসর ও ৬ জিবি র‌্যাম। এতে রয়েছে ৬৪ জিবি স্টোরেজ। মূল্য কমপক্ষে ৪০০ ডলার।
৯. এইচটিসি ১০
এইচটিসি ১০ অত্যন্ত সুন্দর মডেলের দারুণ একটি স্মার্টফোন। এর অপারেটিং সিস্টেমটিও প্রায় অক্ষত অবস্থায় এ স্মার্টফোনে দেওয়া হয়েছে। এ স্মার্টফোনটি আনলক অবস্থায় কেনা যায়। মূল্য কমপক্ষে ৭০০ ডলার।
১০. এলজি জি৫
এলজির সর্বাধুনিক পণ্য জি৫ বাজারে এসেছে। এর বডি সম্পূর্ণ ধাতব। অনেকেই একে স্মার্টফোনগুলোর মধ্যে সেরা বলছেন। দারুণ ছবি তোলা যায় এতে। এছাড়া এ ফোনটির বটমটি রিমোভেবল হওয়ায় সহজেই ব্যাটারি পরিবর্তন করা যায়। মূল্য কমপক্ষে ৬৫০ ডলার।
১১. স্যামসাং গ্যালাক্সি নোট ৫
স্মার্টফোনে বিনোদনের পাশাপাশি জরুরি কাজ করতে চাইলে সেরা ফোন স্যামসাং গ্যালাক্সি নোট ৫। বড় স্ক্রিনের এ স্মার্টফোনটিতে রয়েছে অসাধারণ সূক্ষ্ম ডিসপ্লে ও দারুণ ক্যামেরা। এছাড়া এতে রয়েছে স্টাইলাস সংযোজনের অপশন। এ বছরের গ্যালাক্সি নোটের সংস্করণটি আগের যে কোনো সময়ের তুলনায় উন্নত। যেমন এতে গ্যালাক্সি এস৬-এর সঙ্গে মিল রেখে নানা সুবিধা সংযোজিত হয়েছে। এমনকি ডিসপ্লে বন্ধ রেখেও আপনি তার ওপর লিখতে পারবেন। স্মার্টফোনটির মূল্য কমপক্ষে ৫২০ ডলার।
১২. মটো এক্স পিওর
অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোনের মানসম্মত ভালো ফোনের একটি হলো মটোরোলা মটো এক্স পিউর। এ স্মার্টফোনটিতে রয়েছে সুপার শার্প কিউএইচডি স্ক্রিন ও ২১ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা। পাশাপাশি স্মার্টফোনটিতে রয়েছে অ্যান্ড্রয়েডের সম্পূর্ণ অক্ষত ভার্সন। এতে কোনো বাড়তি অ্যাপ নেই, যা এর পারফর্মেন্সকে বাড়াতে সহায়ক। মূল্য কমপক্ষে ২৯৯.৯৯ ডলার।
১৩. আইফোন সিক্স
কিছুটা পুরনো মডেলের আইফোন সিক্স এখনও বাজারের অন্যতম সেরা ফোন। অ্যাপলের ফ্যানরা এখনো অনেকে নতুন মডেলের ফোন বাদ দিয়ে এ ফোন কিনছেন দামের কারণে। মূল্য কমপক্ষে ৫৪৯ ডলার।
১৪. আইফোন সিক্স প্লাস
আইফোন সিক্স প্লাস এখনও অনেকের বিচারে বাজারে দামের তুলনায় সেরা ফোন। অ্যাপলের বড় পর্দার ফোন হলেও অন্য মডেলের তুলনায় ১০০ ডলার কম মূল্য এ মডেলটির। আর এটি অনেককে আকর্ষণ করছে। মূল্য কমপক্ষে ৬৪৯ ডলার।
১৫. মটো জি৩
মটোরোলার নতুন মডেলের মটো জি একটি অসাধারণ ও কমদামের স্মার্টফোন। কমদামের এ স্মার্টফোনটিতে রয়েছে মানসম্মত ক্যামেরা, পানিরোধী বডি ও বড় পর্দা। এটি অন্য স্মার্টফোনের মতো শক্তিশালী না হলেও দামের দিক দিয়ে অসাধারণ। মূল্য কমপক্ষে ১৬০ ডলার।
১৬. এইচটিসি ওয়ান এ৯
অ্যান্ড্রয়েড ফোনগুলোর মধ্যে সবচেয়ে ভালো কয়েকটি স্মার্টফোনের কথা বলতে গেলে এ ফোনটির কথা আসবেই। এইচটিসির পুরনো ভার্সনের তুলনায় এটি সামান্য উন্নত। এতে রয়েছে পুরনো আকর্ষণীয় অ্যালুমিনিয়াম ডিজাইন, উন্নত ক্যামেরা ও দ্রুতগতির প্রসেসর। আপনি যদি এইচটিসির অন্য স্মার্টফোন পছন্দ করেন তাহলে সম্ভবত এটিও পছন্দ করবেন। আইফোনের ডিজাইন যাদের পছন্দ কিন্তু অ্যান্ড্রয়েড ব্যবহার করতে চান তাদের জন্যও এইচটিসি এ৯ একটি আদর্শ ফোন। মূল্য কমপক্ষে ৪০০ ডলার।
১৭. ব্ল্যাকবেরি প্রিভ
ব্ল্যাকবেরির পুরনো ব্যবহারকারীদের মধ্যে যারা অ্যান্ড্রয়েড ফ্যান তাদের জন্য এ স্মার্টফোনটিই সেরা। অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম চালিত ব্ল্যাকবেরির প্রথম ফোন এটি। এ ফোনটিতে রয়েছে স্লাইড আউট কিবোর্ড। আপনি যদি ব্ল্যাকবেরির কিবোর্ড ছাড়াও গুগলের অ্যাপ ব্যবহার করতে চান তাহলে এটি হতে পারে দারুণ একটি স্মার্টফোন। মূল্য কমপক্ষে ৪১৩ ডলার।
১৮. মাইক্রোসফট লুমিয়া ৯৫০
উইন্ডোজ ১০ অপারেটিং সিস্টেম দিয়ে লুমিয়া ৯৫০ নামের একটি উইন্ডোজ ফোন উন্মুক্ত করেছে মাইক্রোসফট। ৫ দশমিক ২ ইঞ্চি মাপের এই ফোনটির ওজন ১৫০ গ্রাম। ৩ জিবি র‍্যামের ফোনটির স্টোরেজ ৩২ জিবি। কোয়ালকমের প্রসেসরযুক্ত ফোনটির পেছনে ২০ ও সামনে ৫ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা রয়েছে। মূল্য কমপক্ষে ৪৪৫ ডলার।
১৯. ব্ল্যাকবেরি ক্ল্যাসিক
স্বতন্ত্র অপারেটিং সিস্টেম ও নিরাপদ বার্তার কারণে ব্ল্যাকবেরিকে অনেকেই পছন্দ করেন। আপনি যদি ব্ল্যাকবেরির ফ্যান হন তাহলে ব্ল্যাকবেরি ক্ল্যাসিক হতে পারে আপনার প্রিয় স্মার্টফোন। এটি ব্যবহারে পুরনো ব্ল্যাকবেরির স্বাদ যেমন পাওয়া যাবে তেমন পরিষ্কার টাচস্ক্রিন ও দারুণ ফিজিক্যাল কিবোর্ডও পাওয়া যাবে। মূল্য কমপক্ষে ৩২৯ ডলার।
২০. ব্ল্যাকবেরি পাসপোর্ট
ব্ল্যাকবেরি পাসপোর্ট অনেকের কাছেই অদ্ভুত আকারের স্মার্টফোন। কিন্তু ব্ল্যাকবেরি ফ্যানরা তাদের প্রিয় বহু বিষয় পাবেন এর মাঝে। এর ফিজিক্যাল কিবোর্ডটি যেমন দারণ তেমন ব্যবহারও সুবিধাজনক। মূল্য কমপক্ষে ৪৫০ ডলার।