Hot!

টেলিভিশন শিশুর আচরণগত সমস্যার কারণ

পড়াশোনা আর এক্সট্রা কারিকুলাম অ্যাকটিভিটির মধ্যে শিশুদের অবসর বা রিফ্রেশমেন্ট মানেই টেলিভিশন। সারাদিনের ধকলের পর শিশুর টিভি দেখার আবদার মানা করতেও কেমন যেন ঠেকে নিজের কাছেই। ফলে আনন্দ খুঁজতে টেলিভিশনের সামনে ঘন্টার পর ঘন্টা পার করে শিশুরা। কিন্তু গবেষণা বলছে টেলিভিশনের সামনে একটানা বসে থাকলে শিশুর বিকাশে বাঁধা সৃষ্টি হয়।
টেলিভিশনে শিশুদের বেশিরভাগ অনুষ্ঠান হয় অ্যাকশন সম্পর্কিত। যা শিশুদের অ্যাগ্রেসিভ বা আক্রমনাত্মক করে তোলে। কারণ শিশুরা যা দেখে তাই শেখে। এতে তারা হিংসা হানাহানিকে স্বাভাবিক বলে মনে করে। গবেষণার কারনে করা এক সমীক্ষায় দেখা গিয়েছে, মোটামুটি ২৫ বছর পর্যন্ত মানুষ টেলিভিশন থেকে যা যা শেখে তা রপ্ত করে এবং তাই বাস্তব জীবনে প্রয়োগ করে।
তাই গবেষকদের মতে, শিশুর অতিরিক্ত টেলিভিশন দেখা তাদের আচরণগত সমস্যা সৃষ্টি করে। কারণ তখন তারা টেলিভিশন থেকে দেখা অনুষ্ঠানের মতই আচরণ করে। যাকে আমরা না বুঝে তাদের বেয়াদবি ভেবে থাকি। তাই শিশুকে একটানা টেলিভিশন দেখতে দিবেন না। প্রয়োজনে সময় ভাগ করে একাধিকবার দেখতে দিন।