Hot!

শেষ দিন কলকাতা চলচ্চিত্র উৎসবের


শুক্রবার আনুষ্ঠানিকভাবে শেষ হচ্ছে আট দিনব্যাপী ঐতিহ্যবাহী কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব। ৮ জানুয়ারি বিকেল ৪টায় পশ্চিমবঙ্গের রাজ্য সচিবালয় নবান্নের সভাঘরে ভার্চ্যুয়ালি কলকাতার এই উৎসবের উদ্বোধন করা হয়। উদ্বোধন করেছিলেন বলিউড তারকা শাহরুখ খান এবং পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

 গতকাল এই উৎসবে প্রদর্শিত হয় বাংলাদেশের ছবি ‘নোনাজলের কাব্য’। সন্ধ্যা ৬টায় নন্দন-২ প্রেক্ষাগৃহে দেখানো হয় ছবিটি। ছবি দেখে উপস্থিত দর্শকেরা প্রশংসা করেন।

ছবিটি পরিচালনা করেছেন রেজওয়ান শাহরিয়ার। ভারতের মাটিতে ছবিটির দ্বিতীয় প্রদর্শনী হলো। 

এর আগে গত ১০ জানুয়ারি বেলা ৩টায় ছবিটি এবারের চলচ্চিত্র উৎসবে প্রথম প্রদর্শিত হয় কলকাতার রবীন্দ্র-ও কাকুরা প্রদর্শনী ভবনে।

ছবির কাহিনি গড়ে উঠেছে এক শিল্পীর সমুদ্রপাড়ের এক প্রত্যন্ত গ্রামে গিয়ে ছবি আঁকাকে ঘিরে। 

এই শিল্পীর ছবি আঁকা নিয়ে স্থানীয়দের সঙ্গে ভালোবাসা, সংঘাত উঠে এসেছে ছবির কাহিনিতে।

ছবিটি দর্শকেরা পছন্দ করেছেন। এর আগে ছবিটি বিএফআই লন্ডন ফিল্ম ফেস্টিভ্যালে প্রদর্শিত হয়। 

ছবিতে অভিনয় করেছেন শতাব্দী ওয়াদুদ, তিতাস জিয়া, তাসনুভা তামান্না প্রমুখ। ছবিটি দেখানো হয় উৎসবের নেটপ্যাক ক্যাটাগরিতে। এই উৎসবে এবার সব ছবি দেখানো হয়েছে বিনা মূল্যে।

উৎসবের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে দেশ–বিদেশের একঝাঁক তারকা উপস্থিত ছিলেন। প্রতিবছরই এই উৎসব নভেম্বর মাসের দ্বিতীয় সপ্তাহে অনুষ্ঠিত হয়ে আসছে। কিন্তু করোনার কারণে এবার এই উৎসবের তারিখ দুবার পিছিয়ে অবশেষে করা হয় ৮ জানুয়ারি। বিগত বছরের মতো এবার অবশ্য উৎসবে তারকাদের খুব একটা ভিড় হয়নি। আটটি সরকারি প্রেক্ষাগৃহে উৎসবের ছবিগুলো দেখানো হয়েছে।

এবার উৎসবে এসেছে পূর্ণদৈর্ঘ্য ৮১টি এবং ৫০টি স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র। বাংলাদেশ থেকে ছিল রেজওয়ান শাহরিয়ারের ছবি ‘নোনা জলের কাব্য’। এবারের এই উৎসবের উদ্বোধনী ছবি ছিল সত্যজিৎ রায় পরিচালিত ও সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় অভিনীত ‘অপুর সংসার’। গত বছর ছিল সত্যজিৎ রায়ের ‘গুপী গাইন বাঘা বাইন’। কলকাতার এই আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব ১৯৯৫ সালে শুরু হয়েছে।

এবার উৎসব আয়োজিত হয়েছে স্বল্প পরিসরে। উৎসবে সদ্য প্রয়াত অভিনেতা সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়কে নিয়ে বিশেষ প্রদর্শনীর আয়োজন করা হয়। পণ্ডিত রবিশঙ্কর, অভিনেতা ভানু বন্দ্যোপাধ্যায় আর সংগীতশিল্পী হেমন্ত মুখোপাধ্যায়ের জন্মশতবর্ষ উপলক্ষে এবারের উৎসবে এই তিন প্রখ্যাত শিল্পীকে শ্রদ্ধা জানানো হয়। এ ছাড়া এই উৎসবে বিশেষ শ্রদ্ধা জানানো হয় প্রয়াত চলচ্চিত্র তারকা বাসু চট্টোপাধ্যায়, ঋষি কাপুর, ইরফান খান, তাপস পাল, অমলা শঙ্কর ও সন্তু মুখোপাধ্যায়কেও।